বৃহস্পতিবার | ১৩ জুন ২০২৪
Cambrian

পদ্মা সেতুতে ধাক্কা ঠেকাতে ফেরিতে রাবার লাগানো হচ্ছে

spot_img
spot_img
spot_img

নিজস্ব প্রতিবেদক
পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কার পর পিলারে রাবারের আস্তর লাগানোর প্রস্তাব দিয়েছিল বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) তদন্ত কমিটি।
তবে সেতু কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তের অপেক্ষা না করে নিজেদের ফেরিতেই রাবারের আস্তর লাগানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংস্থাটি।
বৃহস্পতিবার বিআইডব্লিউটিসির চেয়ারম্যান সৈয়দ মো. তাজুল ইসলাম বলেন, আপাতত বাংলাবাজার শিমুলিয়া রুটে চলাচলকারী পাঁচ ফেরির সামনে ও পেছনে রাবারের আস্তর (ফেন্ডার) লাগানো হবে। এ জন্য আমরা ই-টেন্ডার আহ্বান করব।
ফেরি কাকলীর পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কার ঘটনায় গঠিত পাঁচ সদস্যের কমিটি গতকাল বুধবার রাতে সংস্থার চেয়ারম্যানের কাছে একটি তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়। সেখানে দুর্ঘটনার কারণ হিসেবে বলা হয়, ফেরি চালানোর সময় মাস্টার সুকানির পূর্বপ্রস্তুতি না থাকায় তীব্র স্রোতে সৃষ্ট ঘূর্ণির মধ্যে ফেরি নিয়ন্ত্রণ হারায়।
তবে সংস্থার আগের তদন্ত কমিটি ও নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের কমিটির মতো এই কমিটিও বর্তমানের বাংলাবাজার ঘাট সরিয়ে মাঝিরকান্দিতে নেওয়ার পক্ষে মতামত দিয়েছে।
ভবিষ্যৎ দুর্ঘটনা এড়ানোর জন্য প্রতিবেদনে ১৪টি সুপারিশ করেছে কমিটি। এগুলোর মধ্যে রয়েছে, ছয় মাস পরপর নদীর বৈশিষ্ট্য ও ফেরি পরিচালনা বিষয়ে মাস্টারদের প্রশিক্ষণ (রিফ্রেশিং ট্রেনিং) দেওয়া, প্রতিবছরে মাস্টারদের দৃষ্টি, শ্রবণ ও শারীরিক সক্ষমতা পরীক্ষা করে দেখা, আইএলও কনভেনশন অনুযায়ী মাস্টারদের দায়িত্ব পালনের সময় নিশ্চিত করা, ফেরির নিরাপদ নেভিগেশনের জন্য রাডার ইন্ডিকেটর, আরপিএম মিটার ও জিপিএস কার্যকর থাকা নিশ্চিত করা, ভিএইএফ রেডিও স্থাপন, বর্ষা মৌসুমে পানির স্রোত নিয়মিত মনিটর করা, হাজরা চ্যানেল থেকে বের হয়ে তিন কিলোমিটার পশ্চিমে বয়া স্থাপন, পদ্মা সেতু এলাকায় হাইড্রোগ্রাফিক জরিপের মাধ্যমে স্ফ্যারিক্যাল বয়া স্থাপন; ফেরি চলাচলের রুট নির্ধারণ করে পদ্মা সেতুর পিলারের এমনভাবে মার্কিং করা, যাতে মার্কিং দৃষ্টিগোচর হয়, এ রুটে পুরোনো ফেরির পরিবর্তে নতুন ফেরি পরিচালনা করা ও ফেরি পরিচালনার জন্য স্ট্যান্ডার্ড অপারেশনাল প্রসিডিওর (এসওপি) তৈরি করা।
তবে কমিটি সুপারিশ করলেও ইতিমধ্যেই শিমুলিয়া–বাংলাবাজার রুটে চলাচলকারী ফেরির জন্য পদ্মা সেতুর পিলার মার্কিং করে রুট নির্ধারণ করা হয়েছে।
গত ২০ জুলাই থেকে ১৩ আগস্ট পর্যন্ত চারটি ধাক্কার ঘটনায় তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছে বিআইডব্লিউটিসির দুটি তদন্ত কমিটি ও নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের একটি তদন্ত কমিটি। নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটির সাত গুচ্ছ সুপারিশ বাস্তবায়নের জন্য সাত সদস্যের একটি কমিটি গঠিত হলেও এখনো তারা কোনো সভা করেনি বলে বিআইডব্লিউটিসি সূত্রে জানা গেছে।

- Advertisement -spot_img

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -spot_img

সর্বশেষ সংবাদ