মঙ্গলবার | ২১ মে ২০২৪
Cambrian

জীবন বাঁচানোর জন্য মাস্ক পরতে হবে : মেয়র আতিক

spot_img
spot_img
spot_img

‘লজ্জা নিবারণের জন্য আমাদের যেমন পোশাক পরতে হয়, তেমনি জীবন বাঁচানোর জন্যও মাস্ক পরতে হবে’—বলেছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।
তিনি বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে জীবন ও জীবিকার প্রয়োজনে সঠিকভাবে মাস্ক পরিধান ও স্বাস্থ্যবিধি যথাযথ মানতে হবে। এর মাধ্যমেই করোনাকে মোকাবিলা করতে হবে।
আজ শুক্রবার সকালে ‘মাস্ক আমার, সুরক্ষা সবার’ ক্যাম্পেইনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বনক্তব্যে মেয়র এসব কথা বলেন। ভার্চ্যুয়াল জুম প্ল্যাটফর্মে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।
এই ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে স্থাপিত কোরবানির পশুর হাটগুলোতে হাত জীবাণুমুক্ত করার ব্যবস্থাসহ প্রায় ৮ লাখ মাস্ক বিতরণ করা হবে।
পাশাপাশি হাটে আসা লোকজনকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে প্রচার চালানো হবে।
মেয়র বলেন, করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় ডিএনসিসির পক্ষ থেকে পর্যাপ্তসংখ্যক স্বাস্থ্য সুরক্ষাসামগ্রী বিতরণসহ জনকল্যাণমূলক কার্যক্রম অব্যাহত আছে।
কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে খাদ্যসহায়তা এবং যেকোনো জরুরি সেবা গ্রহণের জন্য ৩৩৩ নম্বর সচল রয়েছে। এই নম্বরে কল করলে যেকোনো অসহায় ও দুস্থ মানুষ খাদ্যসহায়তা পাবে।
সশরীরে হাটে না গিয়ে অনলাইনে ‘ডিএনসিসি ডিজিটাল হাট-২০২১’ থেকে কোরবানির পশু ক্রয় করার পরামর্শ দিয়ে মেয়র বলেন, নিজের পরিবার, শহর ও দেশকে সুরক্ষিত রাখতে করোনার বিস্তার রোধে সবাইকে সরকারি নির্দেশনা ও স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে মানতে হবে।
এই ক্যাম্পেইনের আওতায় ডিএনসিসির ৯টি হাট ও চট্টগ্রাম সিটির দুটি পশুর হাটে ১৭ থেকে ২০ জুলাই পর্যন্ত চার দিনব্যাপী বিনা মূল্যে মাস্ক বিতরণের পাশাপাশি সারা দেশের জনসাধারণকে সঠিকভাবে মাস্ক পরার বিষয়ে অনুপ্রাণিত করতে সরকারের বিভিন্ন দিকনির্দেশনা প্রচার করা হবে। এই কর্মসূচিতে হাটে ৫০০ প্রোমোটারের মাধ্যমে হাত জীবাণুমুক্ত করার ব্যবস্থা করা এবং ৮ লাখ মাস্ক বিতরণ করা হবে।
চট্টগ্রামের মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, মাস্ক ছাড়া যাতে কেউ হাটে প্রবেশ করতে না পারে, সেই শর্ত ইজারাদারকে দেওয়া হয়েছে। পশু কেনার জন্য হাটে মাত্র একজনকে ঢুকতে দেওয়া হবে। জনগণকে সচেতন করতে নিয়মিত মাইকিং করা হচ্ছে।

লজ্জা নিবারণে পোশাক, জীবন বাঁচাতে মাস্ক: মেয়র আতিক
অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে টিকা গ্রহণের পাশাপাশি সঠিকভাবে মাস্ক পরার অভ্যাস করতে হবে জানিয়ে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক বলেন, সঠিকভাবে মাস্ক পরার অভ্যাস তৈরি করতে পারলে আমরা জীবন ও জীবিকা রক্ষা করতে পারব। মাস্ক পরার অভ্যাসকে রীতি ও সংস্কৃতিতে পরিণত করতে হবে।
শক্তি ফাউন্ডেশনের উপনির্বাহী পরিচালক ইমরান আহমেদের সঞ্চালনায় ক্যাম্পেইনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম রেজা ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত ছিলেন।
ঢাকা উত্তর সিটি ও চট্টগ্রাম সিটির সহযোগিতায় তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগ, এটুআই ও শক্তি ফাউন্ডেশনের আয়োজিত এই ক্যাম্পেইনে গবেষণা সহযোগী প্রতিষ্ঠান ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়, ইনোভেশন ফর পভার্টি অ্যাকশন (আইপএি) ও ব্র্যাক ইনস্টিটিউট অব গভর্নেন্স অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (বিআইজিডি), আর্থিক সহযোগী প্রতিষ্ঠান সিটি ফাউন্ডেশন ও ফুডপান্ডা, মাস্ক বিতরণে সহযোগী প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই) এবং ইয়াং বাংলা ও বিডি ক্লিন যুক্ত আছে।

- Advertisement -spot_img

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -spot_img

সর্বশেষ সংবাদ