শনিবার | ২ মার্চ ২০২৪
Cambrian

ক্ষমতা হস্তান্তর প্রক্রিয়া নির্ধারণী বৈঠকে তালেবান-আফগান সরকার

spot_img
spot_img
spot_img

ক্র্যাবনিউজ ডেস্ক

অনেকটা বিনাপ্রতিরোধেই গোটা আফগানিস্তান দখল করে নিয়েছে তালেবান। এখন আনুষ্ঠানিক ঘোষণার অপেক্ষা মাত্র। আজ রবিবার বিকাল ৫টায় রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে প্রকাশিত একটি চিত্রে দেখা গেছে, কাবুলে বীরদর্পে নিজস্ব পতাকা উড়িয়ে মহড়া দিচ্ছে তালেবান।
অন্যদিকে আফগান সরকার ‘শান্তিপূর্ণ ক্ষমতা হস্তান্তরে’ প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে খবর বেরিয়েছে। আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে প্রবেশের মধ্য দিয়ে দেশটির ক্ষমতা দখলের দ্বারপ্রান্তে চলে গেছে তালেবান।
এমন পরিস্থিতিতে অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের হাতে ‘শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর’ করতে চাইছে দেশটির সরকার। আজ রোববার আফগানিস্তানের ভারপ্রাপ্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম বিবিসি।
কাবুল পরিস্থিতি নিয়ে আফগানিস্তানের টেলিভিশন চ্যানেল টোলো টিভিতে প্রচারিত এক ভিডিও বক্তব্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, আফগান জনগণের উদ্বিগ্ন হওয়ার কারণ নেই…কাবুলে কোনো হামলার ঘটনা ঘটবে না। অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের হাতে ‘শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর’ করা হবে।
রাজধানী শহরটিতে কোনো ধরনের সংঘাত চাচ্ছেন না তালেবান নেতারাও। কাবুলে এই মুহূর্তে অবস্থান করছেন আল-জাজিরার সাংবাদিক চার্লট বেলিস। তালেবানের সূত্রের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, তালেবান নেতারা সবাইকে শান্ত থাকার জন্য বলেছেন। তাঁরা শান্তির বার্তা নিয়ে এসেছেন।

ওই সূত্রের বরাত দিয়ে চার্লট বেলিস আরও বলেন, কাবুলে তালেবানের সংঘাতে জড়ানোর কোনো উদ্দেশ্য নেই। শহরের সরকারি ভবনগুলো সুরক্ষিত আছে। কেউ শহরটি ত্যাগ করতে চাইলে তাদের এ সুযোগ দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া নারীদের নিরাপদে অবস্থান করার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।
এদিকে তালেবানের আন্তর্জাতিক মুখপাত্র সুহাইল শাহিনের সঙ্গেও কথা হয়েছে আল-জাজিরার। তিনি বলেছেন, শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তরে আফগান সরকারের সহযোগিতার অপেক্ষা করছেন তাঁরা।
এর আগে কাবুলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছে, আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে ঢুকে পড়েছেন তালেবান যোদ্ধারা। শহরটির চারদিক থেকে প্রবেশ করছেন বাহিনীটির যোদ্ধারা। তবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে আফগান প্রেসিডেন্টের কার্যালয় থেকে জানানো হয়, কাবুলে বিচ্ছিন্ন কিছু গোলাগুলি হয়েছে। তবে আক্রমণের ঘটনা ঘটেনি। আফগানিস্তানের নিরাপত্তাকর্মী ও সেনাবাহিনীর সদস্যরা তাঁদের বিদেশি অংশীদারদের সঙ্গে নিয়ে শহরের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কাজ করছেন।

জরুরি বৈঠকে গনি সরকার
তালেবান বাহিনী কাবুলের দোরগোড়ায় পৌঁছে গেছে খবর আসতেই দেশটির প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি মার্কিন দূত জালমে খালিলজাদ ও ন্যাটোর অন্যান্য শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে জরুরি বৈঠকে বসেছেন। বিভিন্ন গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে বিবিসি এ তথ্য জানায়।

- Advertisement -spot_img

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -spot_img

সর্বশেষ সংবাদ